বাংলাদেশের জিডিপিতে গার্মেন্টস শিল্প খাতের অবদান কি? - বাংলাদেশ জিডিপি কতো - জিডিপি মানে কি?

বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি, বাংলাদেশের জিডিপি কতো, বাংলাদেশের জিডিপিতে গার্মেন্টস শিল্পের অবদান কি, জিডিপি কিভাবে গণনা করা হয়?

আসসালামু আলাইকুম, আশাকরি মহান আল্লাহ তায়ালার    রহমতে    আপনারা     সবাই    ভালো আছেন । আজকের  পোস্টে  আমরা   আলোচনা করবো     বাংলাদেশের     জিডিপিতে    গার্মেন্টস শিল্পের  অবদান  সম্পর্কে ।  আপনি  নিশ্চয়ই   এ বিষয়ে জানতে আগ্রহী সেজন্য  এই  পোস্ট  ক্লিক করেছেন তাই আজকের  পোস্টটি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে ।  শেষ  পর্যন্ত  পরার অনুরোধ করা হলো।


আর্টিকেলটি পড়ে আমরা যা-যা জানতে পারবো

#     জিডিপি কি?

#     জিডিপি কিভাবে গণনা করা হয়?

#     বাংলাদেশের জিডিপিতে গার্মেন্টস শিল্পের অবদান কি?

#     বাংলাদেশের জিডিপি কতো?

#    বিশ্বের জিডিপি র‍্যাংকিং এ বাংলাদেশ কতো নম্বরে?

বাংলাদেশের     জিডিপিতে    গার্মেন্টস     শিল্পের অবদান সম্পর্কে জানার আগে আমাদের জানতে হবে  জিডিপি কি?  ও   কিভাবে   কোনো   দেশের জিডিপি গনণা করা হয়!

জিডিপি কি? কিভাবে গণনা করা হয়?

জিডিপ  (G.D.P)  হলো  একটি  ইংরেজি  শব্দের সংক্ষিপ্ত রূপ। জিডিপি  (G.D.P)  শব্দের  পূর্ণরূপ হলো   "Gross   Domestic   Product"   অর্থাৎ "মোট দেশীয়  পণ্য" ।  যে  দেশে  দেশের  মানুষের মোট খাবার,  চিকিৎসা,  শিক্ষাসহ  সকল  চাহিদা পুরন করার পন্য  রয়েছে  এবং  অন্য  দেশ  থেকে কম  আমদানি  করে সে  দেশের  জিডিপি  প্রবৃদ্ধি বেশি। এবং যে দেশের  প্রয়োজনীয়  পন্য  কম  ও আমদানী  বেশি  করতে  হয়    সে  দেশে  জিডিপি প্রবৃদ্ধি কম থাকে।

বাংলাদেশের জিডিপি কতো? বিশ্বে বাংলাদেশ কতোতম?

বাংলাদেশের    জিডিপি    397    Bilion     USD (nominal   2022)  ।    বাংলাদেশের    ইকোনমি ফ্রীডম স্কোর  ৫২.৭।  এজন্য  বাংলাদেশ   বিশ্বের ১৩৭তম সর্বচ্চ জিডিপি সম্পুর্ন  স্বাধীন দেশে স্থান দিয়েছে। এবং  এশিয়া  মহাদেশের  ৩৯টি  দেশের মধ্যে বাংলাদেশের র‍্যাংক ২৯ তম। ৫  বছর  পূর্বে থেকে    বাংলাদেশেও    জিডিপি    প্রবৃদ্ধি    শুরু হয়েছে ।   বর্তমানে   এশিয়া     মহাদেশের    মধ্যে বাংলাদেশের জিডিপি  সর্বচ্চ গতিতে বাড়ছে।


বাংলাদেশের জিডিপিতে গার্মেন্টস শিল্পের অবদান কি?

গার্মেন্টস শিল্প বাংলাদেশের মানুষের জন্য বিশেষ করে গ্রাম অঞ্চলের মানুষের জন্য আসার  আলো হয়েছে  ।   গার্মেন্টস   শিল্পের   মাধ্যমে   এদেশের বেকারত্বের হার অনেক  কমেছে । গার্মেন্টস  খাত এদেশের   অনেক   মানুষের    কর্মস্থান    হয়েছে।   তা  গত সাত বছরে, বাংলাদেশের পোশাক শিল্প  তার   বার্ষিক  আয়  $19   বিলিয়ন  থেকে   $34 বিলিয়ন   এ  ৭৯   শতাংশ   বৃদ্ধি   পেয়েছে।  এটি দেশটিকে     বিশ্বের     দ্বিতীয়    বৃহত্তম    পোশাক রপ্তানিকারক করে তোলে,  যেখানে   এই   খাতটি  বাংলাদেশের  মোট রপ্তানি আয়ের ৮০  শতাংশের  জন্য    দায়ী ৷    বাংলাদেশী     সরকার    দেশের     অর্থনীতির   একটি কেন্দ্রীয় স্তম্ভকেও রক্ষা করতে চেয়েছিল।   পোশাক    শিল্প,   যা   4.4   মিলিয়ন   কর্মসংস্থান   করে   ৷   দেশের    জিডিপিতে   ১১  শতাংশের   বেশি   অবদান   রাখে   মানুষ,  যাদের বেশিরভাগই নারী।

গার্মেন্টস শিল্পের পর  বাংলাদেশের   জিডিপি   ও অর্থনীতির মেরুদণ্ড হলো কৃষি শিল্প  ।  কৃষিকাজ করে বাংলাদেশের অনেক মানুষ তাদের  জীবিকা নির্বাহ করে। শুধু কৃষকেরাই নয় যাদের কৃষিজমি নেই  তারা অন্যের  জমিতে  কাজ  করে  জীবিকা নির্বাহ    করছে  ।  আপনারা  যদি   বাংলাদেশের জিডিপিতে  কৃষির   অনদান  সম্পর্কে   বিস্তারিত জানতে চান তাহলে কমেন্ট  করতে  ভুলবেন  না।


এতক্ষন আমাদের  সাথে  থাকার  জন্য   ধন্যবাদ! এরকম   আরো   শিক্ষামূলক   আর্টিকেল   পেতে আমাদের পাশেই থাকুন (JaniBanglay.xyz)

কমেন্টকরুন

1 টি কমেন্ট

Cancel